অর্থনীতিরাজনীতি

সারা দেশে ট্রেড ইউনিয়ন সংঘের বিক্ষোভ-সমাবেশ: আইনি সুরক্ষা দিয়ে জাতীয় ন্যূনতম মূল মজুরি ২০ হাজার টাকার ঘোষণার দাবি

স্টাফ রিপোর্টার:   আইনী সুরুক্ষা দিয়ে জাতীয় মজুরি কমিশন গঠন করে বাজারদরের সাথে সংগতিপূর্ণভাবে ন্যূনতম মূল মজুরি ২০ হাজার টাকা ঘোষণার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন সংঘ। ২৬ সেপ্টেম্বর দেশব্যাপী কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অনুষ্ঠিত এক বিক্ষোভ সমাবেশে এ দাবি জানায় জাতীয় ফেডারেশনটি। এছাড়াও সমাবেশে শ্রমআইন ও শ্রম বিধিমালার শ্রমিকস্বার্থ বিরোধী ধারা ও বিধি সমূহ বাতিল করে গণতান্ত্রিক শ্রমআইন ও শ্রমবিধি প্রণয়ন এবং অবাধ ট্রেড ইউনিয়ন অধিকারসহ কর্মক্ষেত্রে নিরাপত্তার দাবিতে ঐক্যবদ্ধ শ্রমিক আন্দোলন গড়ে তোলার আহবান জানানো হয়।

জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সমাবেশ

বিকাল ৪.৩০ টার সময় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অনুষ্ঠিত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন ট্রেড ইউনিয়ন সংঘের সভাপতি হাবীব উল্লাহ বাচ্চু। এছাড়াও সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সহ-সভাপতি মোঃ খলিলুর রহমান, যুগ্ম সম্পাদক মোহম্মদ ইয়াসিন এবং প্রচার সম্পাদক আনোয়ার হোসেন ও বাংলাদেশ হোটেল রেস্টুরেন্ট সুইটমিট শ্রমিক ফেডারেশনের সহ-সভাপতি আখতারুজ্জামান খান । সমাবেশটি পরিচালনা করেন সহ-সাধারণ সম্পাদক প্রকাশ দত্ত।
সমাবেশে বক্তারা বলেন, সরকার সাম্রাজ্যবাদী বিশ্বসংস্থা নির্দেশিত এসডিজি কর্মসূচি বাস্তবায়নের নামে দেশের জনগণকে ঋণগ্রস্থ করে তথাকথিত উন্নয়নের সাফাই গেয়ে চলেছে। অথচ বাস্তবতা হচ্ছে ৮৫ হাজার টাকা ঋণের বোঝা নিয়ে (যার মধ্যে বৈদেশিক ঋণ ২৫ হাজার টাকা) আজ প্রতিটি শিশু জন্মগ্রহণ করছে। ক্ষুধার জ্বালায় এবং এনজিও ঋণের কিস্তি পরিশোধ করতে না পারায় প্রায়শঃই আত্মহত্যার করার সংবাদও প্রকাশিত হচ্ছে। নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের উর্দ্ধগতির পাশাপাশি গ্যাস, পানি, বাড়িভাড়া, গাড়িভাড়া, চিকিৎসা খরচসহ জীবনযাত্রার সকল কিছুর ব্যয় অব্যাহতভাবে বাড়তে থাকলেও বাড়ছে না শুধু শ্রমিকের মজুরি।
নেতৃবৃন্দ বলেন, সরকার ও মালিক গোষ্ঠীর অব্যাহত নির্মম শাসন-শোষণের কারণে শ্রমিকদের মধ্যে অভাব অনটন ও দারিদ্র্যতা বৃদ্ধি পেয়েছে। শুধু করোনার অজুহাতেই দেশে নতুন করে আরও আড়াই কোটি মানুষকে দারিদ্র্যসীমার নিচে ঠেলে দেয়া হয়েছে । এমতাবস্থায় গার্মেন্টস, হোটেল-রেস্টুরেন্ট, নৌযানসহ বিভিন্ন সেক্টরের নিম্নতম মজুরি পূণঃনির্ধারণ করা জরুরী।

নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, এ যাবতকালে ক্ষমতাসীন সকল সরকারই শ্রেণীগতভাবে মালিকগোষ্টির স্বার্থরক্ষাকারী সরকার হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। যার কারণে বিগত ৫০ বছরেও দেশে জাতীয় মজুরি কমিশন গঠন করা হয়নি। পাশাপাশি শ্রমিকদের সংগঠিত হওয়া, দরকষাকষির সুযোগ ক্রমশঃ হরণ করা এবং সা¤্রাজ্যবাদী লগ্নিপুঁজি ও দালাল পুঁজির সর্বোচচ মুনাফা নিশ্চিত করার উপযোগী করে শ্রমআইন ও শ্রমবিধি প্রণয়ন করা হয়েছে। বাঁশখালিতে পুলিশের গুলিতে ও রূপগঞ্জে অগ্নিদগ্ধসহ বিভিণœ কারখানা ও অঞ্চলে কর্মক্ষেত্রে প্রাণহানির ঘটনা ঘটলেও দায়ীদের উপযুক্ত শাস্তির আওতায় আনা হয় নি। একই সাথে বিভিন্ন সময়ে গঠিত তদন্ত কমিটির রিপোর্টও আলোর মুখ দেখে নি।

এরকম একটি দুঃসহ পরিস্থিতিতে দেশিবিদেশী নির্মম শোষণ ও স্বৈরতান্ত্রিক সরকারের নিপীড়ন-নির্যাতনেরবিরুদ্ধে তীব্র আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। এ লক্ষ্যে বাজারদরের সাথে সংগতিপূর্ণভাবে ন্যূনতম মূল মজুরি ২০ হাজার টাকা ঘোষণা, শ্রম আইন ও শ্রম বিধিমালার শ্রমিকস্বার্থ বিরোধী ধারা ও বিধি সমূহ বাতিল করে গণতান্ত্রিক শ্রমআইন ও শ্রমবিধি প্রণয়ন, অবাধ ট্রেড ইউনিয়ন অধিকার ও কর্মক্ষেত্রে নিরাপত্তার দাবিতে ঐক্যবদ্ধ শ্রমিক আন্দোলন গড়ে তোলার জন্য নেতৃবৃন্দ আহবান জানান।

যশোর প্রেসক্লাবের সামনে সমাবেশ

যশোর: ২৬ সেপ্টেম্বর দেশব্যাপী কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে যশোর প্রেসক্লাবের সামনে এক বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে শ্রমআইন ও শ্রম বিধিমালার শ্রমিকস্বার্থ বিরোধী ধারা ও বিধিসমূহ বাতিল করে গণতান্ত্রিক শ্রমআইন ও শ্রমবিধি প্রণয়ন এবং অবাধ ট্রেড ইউনিয়ন অধিকারসহ কর্মক্ষেত্রে নিরাপত্তার দাবিতে ঐক্যবদ্ধ শ্রমিক আন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান জানানো হয়। শহরের পাইপপট্টি মোড় থেকে একটি বিক্ষাভ মিছিল শহর প্রদক্ষিণ করে প্রেসক্লাবের সামনে অনুষ্ঠিত সংক্ষিপ্ত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন ট্রেড ইউনিয়ন সংঘের জেলা সভাপতি আশুতোষ বিশ্বাস। বক্তব্য রাখেন জেলা সাধারণ সম্পাদক কৃষ্ণা সরকার, অন্যতম নেতা নাজমুল হোসাইন ও জাতীয় ছাত্রদল নেতা মধুমঙ্গল বিশ্বাস প্রমুখ।

রাজবাড়ী প্রেসক্লাব চত্ত্বরে সমাবেশ

রাজবাড়ী: রাজবাড়ী প্রেসক্লাব চত্বরে ক্রেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ বিশেষ বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন সংঘ রাজবাড়ী জেলা শাখার পক্ষ থেকে রবিউল আলম মিনু’র সভাপতিত্বে শরিফুল ইসলাম এর পরিচালনায় শ্রমিক সমাবেশ ও বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বক্তব্য রাখেন জাচ্চু রহমান, আঃ রহমান, আঃ জলিল, রহিম শেখ, রিপন শেখ, মামুন শেখ, ফরহাদ, কালাম, আলেক প্রমুখ।

খুলনা মহানগরীর পাওয়ার হাউস মোড়ে সমাবেশ

খুলনা: খুলনা মহানগরীর পাওয়ার হাউসের মোড় থেকে বেলা ১১ টায় দেশব্যাপী কর্মসূচীর অংশ মোতাবেক বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন সংঘ খুলনা জেলা শাখার উদ্যোগে এক মিছিল শহরের বিভিন্ন সড়কপথ ঘুরে প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়। খুলনা ট্রেড ইউনিয়ন সংঘের জেলা সভাপতি নাজিউর রহমান নজরুল এর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন ট্রেড ইউনিয়ন
সংঘ খুলনা জেলা সহ সভাপতি বাহারুল ইসলাম বাহার, সাধরণ সম্পাদক আব্দুস ছাত্তার,কোষাধ্যক্ষ
হাসান মাষ্টার। মিছিল ও সমাবেশে জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট, গণতান্ত্রিক মহিলা সমিতি ও ধ্রুবতারা সাংস্কৃতিক সংসদের জেলা নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সিলেট নগরীতে মিছিল সমাবেশ

 

সিলেট: বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন সংঘ সিলেট জেলা শাখার উদ্যেগে এক বিক্ষোভ মিছিল ক্রিনব্রিজ পয়েন্ট থেকে শুরু হয়ে শহরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সিলেট জেলা শাখার সভাপতি সুরুজ আলী এর সভাপতিত্বে যুগ্ম সম্পাদক রমজান আলী পটুর পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন সংঘ সিলেট জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মো. ছাদেক মিয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ খোকন আহমদ, পূর্বাঞ্চল কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ নাছির মিয়া, জাতীয় ছাত্রদল সিলেট শহর পূর্বাঞ্চল কমিটির অন্যতম নেতা শুভ আজাদ, সিলেট জেলা হোটেল শ্রমিক ইউনিয়ন এর কোষাধ্যক্ষ মুহিদুল ইসলাম, দক্ষিণ সুরমা উপজেলা কমিটির সহ সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মোমিন রাজু প্রমুখ।

ময়মনসিংহে পাটগুদাম র‌্যালীর মোড়ে সমাবেশ

ময়মনসিংহ: আইনি সুরক্ষা দিয়ে ২০ হাজার টাকা জাতীয় নিম্নতম মজুরি ঘোষণাসহ কর্মক্ষেত্রের নিরাপত্তা, অবাধ ট্রেড ইউনিয়ন অধিকার এবং শ্রমিক স্বার্থবিরোধী ধারা বাতিল করে গণতান্ত্রিক শ্রম আইন ও শ্রম বিধিমালা প্রণয়নের দাবিতে কেন্দ্রিয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে ময়মনসিংহে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। দুপুর ১২ টায় জেলা সহ- সভাপতি হযরত আলীর সভাপতিত্বে পাটগুদাম র‌্যালীর মোড় সংগঠনের কার্যালয়ের সামনে এ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তব্য রাখেন ময়মনসিংহ জেলা শাখার সহ সাধারণ সম্পাদক নাজিব আহমেদ, দপ্তর সম্পাদক সারোয়ার হোসেন সুমন,ধ্রুব তারা সাংস্কৃতিক সংসদের সদস্য অনন্ত, ঋতু ভট্টাচার্য প্রমুখ।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *